কম সময়ে মেকআপ করার কিছু টিপস – Makeup tips bangla

কম সময়ে মেকআপ করার কিছু টিপস

মেয়েদের প্রায়শই শুনতে হয় তাদের নাকি সাজতে বা মেকআপ করতে ঘন্টার পর ঘন্টা সময় লাগে। মেয়েরাও ইচ্ছা করলেই খুব কম সময় সেজে ফেলতে পারে কিন্তু তার জন্য আপনাকে যা করতে হবে তা হ’ল আপনার মেকআপ কিটে কয়েকটি বিশেষ জিনিস রাখা।  তবে এই প্রোডাক্ট গুলো খুব একটা দামি না আপনারা খুব কম খরচে এই প্রোডাক্ট গুলো কীনতে পরবেন। চলুন জেনে নেয়া যাক এই বিশেষ প্রোডাক্ট গুলো কি বা এর ব্যবহার কিভাবে করবেন ।

১. ক্লিনজার

যেকোন মেকআপের আগে অবশ্যই মুখ পরিষ্কার করা দরকার তবেই মেকআপটি ভালো ভাবে ফুটে উঠবে। আর এর জন্য দরকার ভাল ক্লিনজার যা মুখ পরিষ্কার করতে সহায়তা করে। মেকআপ প্রয়োগের আগে আপনার ত্বকের টেক্সচার বুঝে একটি ভাল ক্লিনজার ব্যবহার করুন। ক্লিনজার মুখে জমে থাকা ময়লা কে টেনে বেরকরে নিয়ে আসে এবং মৃত কোষগুলি কে সরিয়ে মুখকে উজ্জ্বল করে তোলে ।

২. ময়শ্চারাইজার

মুখ পরিষ্কার করার পরে, একটি ভাল ময়েশ্চারাইজার লাগান।  ময়েশ্চারাইজার যেমন একদিকে ত্বকে ময়শ্চারাইজ করে, অন্যদিকে এটি মেকআপটিকে ত্বকের সরাসরি সংস্পর্শে আসতে দেয় না।  ফলস্বরূপ, ত্বক আরও ভাল থাকে।

৩. সানস্ক্রিন

আমরা সকলেই জানি কেন সানস্ক্রিন ব্যবহার করা হয়।  দিনের বেলা যদি আপনি মেকআপ নিয়ে বাইরে যেতে চান তবে সানস্ক্রিন ব্যবহার করা জরুরী।  তারপরে মেকআপটি ত্বকে দীর্ঘকাল ধরে থাকে।  সানস্ক্রিন আপনার মেকআপটিকে একইভাবে লক করে রাখে।

  ৪) প্রাইমার

এখন সময় আসল মেকআপ প্রয়োগ করার।  তবে ফাউন্ডেশনের আগে প্রাইমারও ব্যবহার করা উচিত।  এটি মুখে মেকআপ প্রয়োগের আগে একটি শক্ত ভিত্তি তৈরি করে।  যদি সঠিকভাবে ব্যবহার করা হয় তবে মেকআপটি দীর্ঘ সময়ের জন্য মুখে থাকে এবং নিখুঁত থাকে।  এই প্রাইমারটি মেকআপটি মুখে রাখে।

 
৫. ফাউন্ডেশন

প্রথমে ভাল ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন।  আপনার ত্বকের ধরণ অনুসারে ফাউন্ডেশন ব্যবহার করা উচিত।  ফাউন্ডেশন একদিকে যেমন মুখ উজ্জ্বল করে, তেমনি এটি মুখের দাগ ছোপ ইত্যাদি ঢেকে মুখকে নিখুঁত করে তোলে।

  ৬.  কনসিলিয়র

ফাউন্ডেশন ব্যবহার করে মুখের কিছু অংশে দাগ ছোপ তো দূর করাগেল।  তবে এমন কিছু দাগ রয়েছে যা ফাউন্ডেশন প্রয়োগ করেও আড়াল করা যায় না। এই দাগের জন্যই কনসিলার দরকার।  যেমন ব্রণর চিহ্ন বা ব্ল্যাকহেড সহজেই ফাউন্ডেশনের দ্বারা লুকনো যায় না। এই ক্ষেত্রে কনসিলার অনবদ্য কাজ করে আপনাকে নিখুঁত করে তোলে।

কম সময়ে মেকআপ করার কিছু টিপস

৭. বিবি ক্রিম

এটিকে প্রায়শই বিউটি বাম বা ব্লেমিস বাম বলা হয়।  আপনি যদি আলাদাভাবে কনসিলার, ফাউন্ডেশন বা প্রাইমার ব্যবহার করতে না চান তবে আপনি ভাল ব্র্যান্ডের এই বিবি ক্রিমটি ব্যবহার করতে পারেন।  এটি সুন্দর মেকআপ বেশ হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে।

৮.  আই শ্যাডো

মুখের মেকআপ শেষ, এরপর চোখের পালা।  আপনি যদি আপনার চোখকে সুন্দর না করেন তবে পুরো সাজটাই বেকার ।  এরপরে চোখ সাজানোর আগে চোখে আই শ্যাডো ব্যবহার করুন।  আপনার ত্বকের স্বর অনুযায়ী  আই শ্যাডো ব্যবহার করুন।  এবং যদি আপনি দিনের বেলা মেকআপ করেন তবে হালকা আই শ্যাডো ব্যবহার করা ভাল এবং যদি আপনি রাতে মেকআপ করেন তবে চোখে ডিপ আই শ্যাডো ব্যবহার করা ভাল।

৯. আই লাইনার

চোখে শেড ব্যবহার করার পরে চোখটিকে প্রমিনেন্ট করা গুরুত্বপূর্ণ। আর এজন্যই দরকার আই লাইনার ।  যেহেতু আই লাইনার চোখের সরাসরি সংস্পর্শে আসে তাই ভাল ব্র্যান্ড আই লাইনার ব্যবহার করা উচিত। এখন আবার আই লাইনার কালো বাদে অন্য রঙে পাওয়া যায়।  আপনার পছন্দের পোশাকের সাথে মিল রেখে আই লাইনার কিনতে পারেন।

আরো পড়ুন : গরমকালে ড্রাই স্কিনে মেকআপ করার টিপস

  ১০. মাস্কারা

চোখের পাতাগুলি একটু বড় না হলে চোখ সুন্দর লাগবে না। তাই চোখের পাতাগুলি সুন্দর, কালো এবং বড় দেখানোর জন্য মাসকারা ব্যবহার করুন।  এটি মূলত কালো  তবে, আপনি দিনের বেলার জন্য হালকা বা স্বচ্ছ মাসকারা ব্যবহার করতে পারেন।

১১. কাজল

কাজল ছাড়া চোখ কখনই মানায়না।  আই লাইনার ও মাসকারা এসবের পরেও কাজলের দরকার পরেই।  এটি চোখে গভীরতা এনে দেয়, চোখ অর্থবহ হয়ে ওঠে।  কাজেই চোখে কাজল ব্যবহার করুন।  এতে চোখের সৌন্দর্য বহুগুণে বেড়ে যায়।  তবে এর জন্য আপনাকে একটি ভাল ব্র্যান্ড ব্যবহার করতে হবে। 

১২. লিপ লাইনার

এবার ঠোঁটের পালা ঠোঁটই আপনাকে মন্ত্রমুগ্ধ করবে।  তাই প্রথমে ঠোঁটকে লিপলাইনার দিয়ে ঠোঁট একে নিন তারপরে লিপস্টিকটি ব্যবহার করেন ঠোঁট অনেক বেশি নিটোল লাগে।

১৩. লিপস্টিক

এখন আপনার লিপস্টিক লাগানোর পালা।  লিপস্টিক আপনার ঠোঁটকে সুন্দর করে তোলে।  যদি আপনি এটিতে লিপ গ্লস ব্যবহার করেন তবে আপনার ঠোঁটের মেকআপ প্রস্তুত।  তবে আপনার ত্বকের রঙ, পোশাক এবং আপনি কোন সময় ব্যবহার করছেন তার ওপর নির্ভর করে।

  ১৪. ব্লাশার

এখন সময় এসেছে আপনার গালকে হাইলাইট করার।  এর জন্য আপনার পছন্দের ব্লাশার ব্যবহার করুন।  বেশ আপনার কমপ্লিট মেকআপ রেডি।

বন্ধুরা এমনই কয়েকটি সাধারণ প্রোডাক্ট যা ব্যবহার করে খুব কম সময়ের মধ্যে আপনারা মেকআপ করতে পারবেন।

বন্ধুরা এই প্রতিবেদনটি ভালো লাগলে অবশ্যই বন্ধুদের সঙ্গে ফেসবুকে শেয়ার করতে ভুলবেন না ধন্যবাদ!