খুশকি দূর করতে নমপাতার ব্যবহার

খুশকি দূর করতে নমপাতার ব্যবহার

শীত শুরুর সাথে সাথে চুলের নানান সমস্যা শুরু হয়। মূলত এই সময়ে ত্বক শুষ্ক থাকে, যার কারণে খুশকির সমস্যা বেশি হয়ে থাকে ।

এই সময়ে মাথার ত্বকে ব্রণ, চুলকানি এবং ফুসকুড়ি মত নানান সমস্যা দেখা দেয় । এর সাথে সাথে চুল পড়ার প্রবণতা বৃদ্ধি পায়।

বাজারে খুশকি নিরাময়ের জন্য অনেক ধরনের শম্পু ও মেডিসিন পাওয়া যায় তবে এইসব শম্পুর মধ্যে অনেকে খতিকর কেমিক্যাল থেকে। যা চুলের খতি করে। তাই আজকের এই প্রতিবেদনে আপনাদের সাথে শেয়ার করবো। কোন কেমিক্যাল ছাড়াই ঘরোয়া উপায় নিমপাতা ব্যবহার করে কিভাবে খুশকি দূর করাযায়।

এই সমস্যার সমাধান করবে নিমপাতা । নিম একটি ওষধি গাছ বলে চিহ্নিত । যার ডালপালা, পাতা, রস সবেরি কিছু গুনাগুন আছে।

যে কোন ধরনের ব্যাকটেরিয়া মেরেফেলতে নিমপাতা খুবই কার্যকরী। আর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতেও এর জুড়ি মেলা ভার।

আসুন জেনে নিই কিভাবে খুশকি থেকে মুক্তি পেতে নিমপাতা ব্যবহার করা যায়।

আরো পড়ুন : উজ্জ্বল ত্বক পেতে হলুদ ফেস প্যাক

খুশকি থেকে মুক্তি পেতে জলে নিমপাতা সিদ্ধ করে সেই জল শ্যাম্পুতে মিশ্রণ করে নিন এবার এটি মাথার তালুতে ভালোভাবে ম্যাসাজ করে ধুয়ে ফেলুন।

সপ্তাহে একবার চুলে নিমপাতা পেষ্ট করে লাগান এবং প্রায় ১ ঘণ্টা রাখুন। ১ ঘন্টা পরে ভালভাবে চুল ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন খুশকি চলে যাবে এবং চুল পড়াবে কম।

এছাড়াও, চুল হবে নরম এবং কোমল।একবার ব্যবহারের পর আপনি পার্থক্য বুঝতে পারবেন।

সপ্তাহে একবার অথবা শীতকালে মাসে দুবার নিম পাতা ব্যবহার করুন। নিমপাতা ত্বকের সমস্যা নিরাময়ে একটি নিখুঁত ওষধ।

নিয়মিত নিমপাতা ও ছালের গুঁড়া বা নিমের ডাল দিয়ে দাঁত মাজলে দাঁত মজবুত হয় এবং দাঁতের রোগ থেকে রক্ষা পাওয়া যায় ।

এই নিম পাতা অন্য অনেক রোগের জন্য দারুণ ওষধ। এই প্রতিবেদনটি যদি ভালো লাগে তাহলে অবশ্যই বন্ধুদের শেয়ার করবেন।

ধন্যবাদ.