দাঁতের ব্যথা কমানোর ৭টি ঘরোয়া উপায়

দাঁতের ব্যথা কমানোর ঘরোয়া উপায়

দাঁতের ব্যথা কমানোর ঘরোয়া উপায়

একটি কথা প্রচলিত আছে যে দাঁত থাকাতে  দাঁতের মর্ম বুঝে না ‘যে সমস্ত লোক দাঁতের ব্যথায় ভোগেন কেবল তারাই বুঝতে পারেন এটি কতটা সত্য। আমাদের জীবনে অনেক সমস্যা রয়েছে এবং এমন অনেক লোক আছেন যাঁরা দাঁতের ব্যথায় ভুগছেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দাঁতের ব্যথা  রাতে ঘুমানোর সময় হয়ে থাকে এবং সারা রাত আপনাকে  অসহ্য যন্ত্রণা ভোগ করতে হয় তা ছাড়া আর কিছুই করার থাকে না। এই সমস্যাটি বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বয়স্ক দের হয়ে থাকে। তাই আজকের এই প্রতিবেদনে দাঁতের ব্যথা কমানোর ঘরোয়া উপায় আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করব ।

দাঁতের ব্যথা কমানোর ঘরোয়া উপায়

১.  আদা ব্যবহার

আদা দাঁতে ব্যথা থেকে তাত্ক্ষণিক স্বস্তি দেয়।  এক টুকরো আদা নিন এবং এটি দাঁতে চিবান।  দাঁতে ব্যথা ও তার আশপাশে আদার রস লাগান।  কিছু সময় পরে আপনি অবশ্যই দাঁতের ব্যথা থেকে মুক্তি পাবেন।

২. বেকিং সোডা ব্যবহার

কিছুটা তুলো জলে ভিজিয়ে তাতে সামান্য বেকিং সোডা দিয়ে দাঁতে লাগান।  তারপরে এক গ্লাস হালকা গরম জলেতে বেকিং সোডা মিশিয়ে কুলকুচি করুন , কিছু খনের মধ্যে আপনি অবশ্যই ব্যথা থেকে মুক্তি পাবেন।

৩. লঙ্কার ব্যবহার

  আশ্চর্যের কিছুই নেই  একটি শুকনা লঙ্কা বা কাঁচা লঙ্কা পেস্ট তৈরি করে এটি দাঁতে লাগান।  লঙ্কায় প্রচুর ক্যালসিয়াম থেকে যা দাঁতের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে ।

৪. পেঁয়াজ ব্যবহার

পেঁয়াজের এক টুকরো কেটে দাঁতের মধ্যে রাখুন, এতে অবশ্যই আরাম পাবেন ।

আরো পড়ুন : oximeter ব্যবহারের পদ্ধতি ও দাম

৫.   লবণ পানি ব্যবহার

দাঁত ব্যথা কমাতে এটি একটি সাধারণ উপায়।  লবণ প্রতিটি ঘরে উপস্থিত একটি উপাদান।  দাঁতে ব্যথার ক্ষেত্রে হালকা গরম জলে কিছুটা নুন যোগ করে বারবার কুলকুচি করুন।  এটি দাঁতের ব্যথা কমাবে এবং মুখে জীবাণু মারবে।  এটি মাড়িগুলিতে রক্ত ​​প্রবাহ তৈরি করবে এবং ফলস্বরূপ মাড়িগুলিতে ব্যথা হ্রাস করবে।

৬. লবঙ্গ ব্যবহার

  এই জিনিসটি সব ঘরেতেই থাকে ।  তাই দাঁতের ব্যথা দেখা দিলে দাঁতের খত স্থানে দাঁতে লবঙ্গ দিয়ে রাখুন।  অথবা আপনি দাঁতে লবঙ্গ তেল ব্যবহার করতে পারেন ।  এটি আপনারা যেকোনো হমিওপ্যাথি ঔষধের দোকানে পেয়ে যাবেন। একটু তুলো লবঙ্গ তেলে ডুবিয়ে দাঁতের দাঁতের খত স্থানে দিয়ে রাখুন খুব তাড়াতাড়ি ব্যথা  থেকে মুক্তি দেবে।  তবে খেয়াল রাখতে হবে দুই ফোঁড়ার বেশি লবঙ্গ তেল ব্যবহার না করা।

৭. রসুন ব্যবহার

একটি রসুনের টুকরো থেতো করে নিন এতে সামান্য লবণ মিশ্রিত করে দাঁতে লাগান, উপকার পাবেন।

দাঁতে পোকা হলে, তার থেকে পুরোপুরি মুক্তি পাওয়ার কীছু উপায়

  এটি সম্পূর্ণরূপে পরিত্রাণ পেতে, একজন ভাল দাঁতের বিশেষজ্ঞের সাথে পরামর্শ করুন। প্রথমে জেনে রাখা দরকার যে দাঁতে পোকা বলতে বাস্তবে কিছু নেই।  তবে দাঁতে পোকা সম্পর্কে লোকেরা যা ভাবেন তা হ’ল ব্যাকটিরিয়া।  ব্যাকটিরিয়া মিষ্টিজাতীয় খাবারের সাথে এক ধরণের অ্যাসিড তৈরি করে এবং এটি ডেন্টাল টিস্যুগুলির ক্ষয় ঘটায় যা ডেন্টাল কেরিজ নামে পরিচিত।

দাঁতের ব্যথা কমানোর ঘরোয়া উপায়

দাঁতের ব্যথা কমানোর ঘরোয়া উপায়

 দাঁতের ক্ষয় রোধ করার উপায়

১.  মিষ্টিযুক্ত খাবার কম  খান বা এড়িয়ে চলুন।
 
২.  সকালে প্রাতঃরাশের পরে এবং রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে ব্রাশ করুন।
 
৩.  বছরে একবার দাঁতের চেকআপ করান।

প্রঃ :- আমি দিনে কতবার দাঁত ব্রাশ করব?  আমি যদি রাতের খাবার শেষে ব্রাশ করি এবং ঘুমাই, আমাকে কি সকালে উঠে আবার ব্রাশ করতে হবে?

উওর :-  দিনে অন্তত দু’বার ব্রাশ করুন।  রাতে খাওয়া পরে ব্রাশ করা – খুব প্রয়োজনীয়।  আপনি যদি রাতে ব্রাশ করেন তবে আমার মনে হয় রাত্রে ব্রাশ করলে সকাল ঘুম থেকে উঠে মুখ জল দিয়ে ধুয়ে প্রাতরাশ করে তারপর ব্রাশ করা বেশি উপকারী বলে আমার মনে হয়।

ব্রাশ করার উদ্দেশ্যটি হল আমাদের মুখে থাকা খাবারের কণাগুলি পরিষ্কার করা এবং খাবার খাওয়ার ঠিক পরে মুখের মধ্যে সবচেয়ে বেশি খাদ্য কণা থাকে যা অবিলম্বে পরিষ্কার করা উচিত।

বন্ধুরা তাই দাঁত থাকতে দাঁতের যত্ন নিন এবং দাঁতের নানান সমস্যা থাকে মুক্তি পান আজ এই পর্যন্তই সবাই ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন ধন্যবাদ ।